11 Ashar 1429 বঙ্গাব্দ রবিবার ২৬ জুন ২০২২
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ »
Home / সারাদেশ / বিএনপি নেতারা কি এখন পদ্মাসেতুর নিচ দিয়ে সাঁতরে পার হবেন প্রশ্ন খাদ্যমন্ত্রীর

বিএনপি নেতারা কি এখন পদ্মাসেতুর নিচ দিয়ে সাঁতরে পার হবেন প্রশ্ন খাদ্যমন্ত্রীর

নওগাঁ প্রতিনিধি : পদ্মাসেতু নাকি আওয়ামী লীগ সরকার করতে পারবেনা। শেখ হাসিনার দূরদর্শীতায় পদ্মা সেতু হয়ে গেছে। এখন কি খালেদা জিয়া ও বিএনপি নেতারা সেতুর নিচ দিয়ে সাঁতরে পদ্মা নদী পার হবেন বলে মন্তব্য করেছেন নওগাঁ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার এমপি। মঙ্গলবার দুপুর আড়াইটার দিকে নওগাঁর নিয়ামতপুরে জেলা পরিষদ অডিটোরিয়ামে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে প্রাপ্ত সমতলে বসবাসরত ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্টির জীবনমান উন্নয়নে শিক্ষার্থীদের মাঝে বাইসাইকেল ও শিক্ষাবৃত্তি বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন মন্ত্রী।

এসময় খাদ্যমন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধু না থাকলে দেশ স্বাধীন হতোনা। বাংলাদেশের বর্তমান যে অবস্থা, পাকিস্তান সে হিসেবে অনেক পিছিয়ে আছে। বাংলাদেশের মত উন্নয়ন এখনো পাকিস্তানে হয়নি। পাকিস্তানে কোন সরকার ৫বছর ক্ষমতায় থাকতে পারেনা। যারা এদেশকে পাকিস্তান করার স্বপ্ন দেখে তারা দেশের উন্নয়ন চায়না, মানুষের কল্যান চায়না। জিডিপির হার বেড়েছে। মানুষের মাথাপিছু আয় বেড়েছে, সোনার চেয়ে খাঁটি বাংলাদেশের মাটি। সব সম্ভব হয়েছে বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার কারনে।

পদ্মাসেতু প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, ডক্টর ইউনুস চেয়েছিল পদ্মাসেতু যেন না হয়, শুধু তিনিই নয় দেশি-বিদেশি অনেকে ষড়যন্ত্র করেছিল। বিদেশ থেকে টাকা না নিয়ে যে দেশে এতবড় সেতু নির্মান করা যায় তা প্রমাণ করেছে শেখ হাসিনা। খালেদা জিয়া বলেছিলেন পদ্মা সেতু নাকি আওয়ামী লীগ সরকার করতে পারবেনা কিন্তু সেতু তো হয়ে গেল। এখন খালেদা জিয়া ও বিএনপির নেতারা কি সাঁতার কেটে সেতুর নিচ দিয়ে পদ্মানদী পার হবে। তারা তো নৌকাতেও মনে হয় উঠবেনা। নৌকা আওয়ামী লীগের আস্তা ও ভালোবাসার প্রতিক। আগামী ২৫তারিখ দেশের আরও একটি বড় অর্জন হবে পদ্মা সেতুর উদ্ভোধনের মাধ্যমে।
আওয়ামী লীগ সরকারের উন্নয়ন কর্মকান্ড নিয়ে মন্ত্রী বলেন, দেশ ও জনগনের কল্যানের জন্য শেখ হাসিনা সরকার আবারও সামনে ক্ষমতায় আসা দরকার। আগামী ২৫তারিখ সাড়া দেশের উৎসব হবে। বিশ্ব দেখবে দেশের টাকায় নির্মিত বিশাল পদ্মাসেতু। বিএনপি ক্ষমতায় থাকাকালীন বিদ্যুৎ দিতে পারেনাই আমরা ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ দিয়েছি,কৃষকদের সার দিতে পারেনাই আমরা কৃষকদের বিনামূল্যে সার দিয়ে যাচ্ছি। কমিউনিটি ক্লিনিক তারা বন্ধ করেছিল তারা আমরা প্রত্যন্ত এলাকায় ক্লিনিক করে দিয়েছি। রাস্তা – কালভার্ট,ব্রিজ, বয়ষ্ক ভাতা,বিধবা ভাতা, শিক্ষা উপবিত্তি, বই খাতা সব বিনামূল্যে পৌছে দিচ্ছি। সকল খাতে উন্নয়ন হয়েছে।

মন্ত্রী আরও বলেন, বিএনপির ভাইদের বলবো কি প্রতিশ্রতি নিয়ে জনগনের কাছে ভোট চাইতে যাবেন আপনারা। জনগনের শক্তি মূল শক্তি, শেখ হাসিনার জন্য সবাই দোয়া করবেন। তিনি সুস্থ্য থাকলে দেশ, ভালো থাকবে। দেশ ও জাতির উন্নয়ন এর জন্য শেখ হাসিনার সরকার বার বার দরকার।

নিয়ামতপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ( ইউএনও) আব্দুল্ল্যাহ আল মামুনের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ফরিদ আহমেদ, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবুল কালাম আজাদসহ প্রমুখ। পরে মন্ত্রী ৫০ জন শিক্ষার্থীর মাঝে বাইসাইকেল, প্রাথমিক ও মাধ্যমিক পর্যায়ে ৩৫০ জন শিক্ষার্থীর মাঝে শিক্ষাবৃত্তি, ১৫ জন দরিদ্র মসৎজীবিদের মাঝে ৪টি করে ছাগল বিতরণ ও ৪৬ জনের মাঝে ২২৫ কেজি মাছের খাদ্য বিতরণ করেন। এর আগে মন্ত্রী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ডিজিটাল এক্সরে মেশিনের উদ্বোধন করেন।

আরও পড়ুন...

প্রধানমন্ত্রীর ১০টি বিশেষ উদ্যোগ নিয়ে নওগাঁয় কর্মশালা

নওগাঁ প্রতিনিধিঃ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ১০টি বিশেষ উদ্যোগ নিয়ে নওগাঁয় জেলা পর্যায়ে দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ কর্মশালা …