11 Ashar 1429 বঙ্গাব্দ রবিবার ২৬ জুন ২০২২
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ »
Home / ক্রাইম নিউজ / নওগাঁয় যৌতুকের কারণে গৃহবধুর মাথার চুল কর্তন ও শ্বাসরোধ করে হত্যার চেষ্টা

নওগাঁয় যৌতুকের কারণে গৃহবধুর মাথার চুল কর্তন ও শ্বাসরোধ করে হত্যার চেষ্টা

নওগাঁ  ঃ নওগাঁ সদরে যৌতুকের দাবিকৃত চাহিদা অনুযায়ী টাকা না দেওয়ায় এক গৃহবধূর মাথার চুল কেটে নির্যাতন ও গলায় ফাঁস দিয়ে হত্যার চেষ্টা করেছে তার পাষন্ড স্বামী। গত শনিবার ভোরে নওগাঁ শহরস্থ চকএনায়েত এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। পাষন্ড স্বামী রাশেদ হোসেন প্রান্ত (৩২) জেলার মান্দা উপজেলার শাহানা পাড়া গ্রামের কোরবান শাহানার ছেলে বলে জানা গেছে। ভিকটিমের পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, গত ২০১৫ সালে জেলার সদর উপজেলার গয়ের পাড়া গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা ডা. সারাফাত হোসেন মেয়ে ডা. অনুজ শিরিন নির্ঝর (৩০) এর সঙ্গে পাশের উপজেলা মান্দা এলাকার শাহানা পাড়া গ্রামের কোরবান শাহানার ছেলে রাশেদ হোসেন প্রান্ত এর সাথে বিয়ে সম্পন্ন হয়। বিয়ের কিছু দিন পর থেকে যৌতুক লোভী স্বামী রাশেদ যৌতুক এর কারণে অনুজ শিরিন নির্ঝর কে শারীরিক ও মানসিক ভাবে নির্যাতন শুরু করে। সংসার টিকানোর জন্য অনুজ শিরিন নির্ঝর নিরুপায় হয়ে কয়েক দফায় টাকা এনে দেয়। ইতোমধ্যে তাদের দু’টি ছেলে সন্তান জন্ম লাভ করে। পরিশেষে গত শনিবার রাশেদ অনুজ শিরিন নির্ঝর কে ৫ লাখ টাকা বাবার বাড়ি থেকে এনে দিতে চাপ সৃস্টি করে। শিরিন উক্ত দাবীকৃত যৌতুকের টাকা এনে দিতে রাজি না হলে যৌতুক লোভী স্বামী রাশেদ শিরিন কে পরিবারের অন্যান্য সদস্যের কুপরামর্শে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করে তাকে জখম করে। একপর্যায়ে গত শরিবার ভোরে স্বামী রাশেদের সাথে শিরিনের চরম বাকবিতন্ডা হয়। নির্যাতনকারী শিরিন কে এলোপাতারী মারপিট করলে শিরিন প্রায় জ্ঞান শূন্য হয়ে পরে। এ সময় স্বামী রাশেদ গলায় ওড়না দিয়ে শ্বাসরোধ করে তাকে হত্যার চেষ্টা করে এবং কেঁচি দিয়ে শিরিনের মাথার চুল কেটে দেয়। বর্তমানে শিরিন নওগাঁ সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছে। ভিকটিম অনুজ শিরিন নির্ঝর বলেন, আমার যৌতুক লোভী স্বামী রাশেদ হোসেন প্রান্ত আমার কাছ থেকে কয়েক দফায় টাকা নিয়েছে। সম্প্রতি সে গোপনে অন্য একটি মেয়েকে বিয়ে করে রাজশাহীতে বসবাস করে। উল্লেখ্য গত করোনাকালীন সময়ে ৪/৫টি সুনামধন্য চিকিৎসকের নাম ভাঙ্গিয়ে অনলাইনের মাধ্যমে কয়েক লাখ টাকা হাতিয়ে নেয়। এ বিষয়ে ঢাকা শেরেবাংলা নগর থানায় মামলা হলে আইন শৃংখলা বাহিনীর কর্তৃপক্ষ তাকে গ্রেফতার করে জেল হাজতে প্রেরন করে। সে র্দীঘদিন জেল হাজতে আবদ্ধ থাকার পর জামিনে এসে আমার উপর নির্যাতন শুরু করেছে। গত শনিবার ভোরে রাশেদ দাবিকৃত যৌতুকের টাকা না পেয়ে ক্ষিপ্ত হয়ে আমাকে এলোপাতারী মারপিট করে কেঁচি দিয়ে আমার মাথার চুল কেটে দেয় এবং গলায় ফাঁস দিয়ে আমাকে হত্যার চেষ্টা করে। পেশায় আমি একজন চিকিৎসক। আমি এই নির্যাতনের সুষ্ঠ বিচার চাই। এ বিষয়ে নওগাঁ সদর হাসপাতালের (ভারপ্রাপ্ত) আবাসিক মেডিক্যাল অফিসার ডাঃ মোঃ আনসার আলী জানান, নওগাঁ সদর উপজেলার অনুজ শিরিন নামে এক চিকিৎসক নির্যাতিত হয়ে গত শনিবারে সকালে নওগাঁ সদর হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। তার স্বামী নির্যাতন করে তার মাথার চুল কেটে দিয়েছে এবং সম্ভবত ওড়নার দ্বারা শ্বাসরোধ করে তাকে হত্যার চেষ্টা করেছে। বর্তমানে সে অত্র হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছে। এ ঘটনার পর থেকে স্বামী রাশেদ পলাতক রয়েছে বলে ভিকটিমের পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে। এ ঘটনায় নওগাঁ সদর মডেল থানার ও’সি মোঃ নজরুল ইসলাম জুয়েল এর সঙ্গে কথা বললে তিনি বলেন বিষয়টি আমার জানা নাই। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নিবেন বলে তিনি জানান।

আরও পড়ুন...

নওগাঁর আত্রাইয়ে আন্ত:জেলা চোর চক্রের সক্রিয় সদস্য গ্রেফতার

নওগাঁ প্রতিনিধিঃ নওগাঁয় আন্ত:জেলা চোর চক্রের সক্রিয় সদস্য রুবেল শেখ (৩৫) কে গ্রেফতার করেছে আত্রাই …